K.G.F: Chapter 1 Bangla Subtitle

K.G.F: Chapter 1 Bangla Subtitle তৈরি করেছেন রাকিব এস কে। মুভিটি পরিচালনা করেছেন প্রশান্ত। গল্পের লেখক ছিলেন প্রশান্ত নীল।K.G.F: Chapter 1 Bangla Subtitle ডাউনলোডের আগে রিভিউ দেখে নিতে পারেন।

রিভিউঃ

মুভির ১ম অংশ (গারুডার এন্ট্রির আগ পর্যন্ত৷) আর দশটা সাউথ মুভির মতোই। একের পর এক চরিত্র ইন্ট্রোডিউস হতে থাকে। (চারটি পিলার, একেকজন এক এক জায়গা কন্ট্রোল করে, দুবাইয়ের ডন, বোম্বের ডন শেট্টি তার শত্রু দিলাওয়ার৷) নায়কও আর দশটা সাউথের মুভির মতোই।

মূলত এন্টারটেইনিং হলেও নতুন কিংবা স্পেশাল কিছু মনে হয়না৷ এরপর শুরু হয় মুভির ২য় অংশ (গারুডার এন্ট্রি) ভিলেনের এন্ট্রির পরেই বোঝা যায় যে মুভিটা আর দশটা মুভির মতো না। সাউথের মুভিতে আজ পর্যন্ত ভিলেনের এতটা অসাধারণ এন্ট্রি আমি দেখিনি। এরপর, রকি কে জি এফে যাবার পর মুভির পুরো ধরনই পাল্টে যায় এমন মনে হয় যেন একসাথে আলাদা দুটো মুভি দেখছি প্রথম মুভিটা আর দশটা সাধারণ সাউথ মুভি আর দ্বিতীয় মুভিটা ডার্ক থিমের যেখানে, মুভির প্রথম অংশে নায়ক নিজের বাহুবলে ১০০ জনকে পিটিয়ে সব সমস্যার সমাধান করতো।

সেই নায়কই এখন কষ্ট করে মাথা খাটিয়ে প্ল্যান করে কাজ করে মানছি রকি অনেক বেশি কষ্ট করেনা কিন্তু, আর দশটা সাউথ মুভিতে নায়কেরা এতটুকু কষ্টও করেনা। মুভির প্রথম অংশের সিনেমাটোগ্রাফি অনেক কালারফুল সেখানে মুভির ২য় অংশ অনেকটাই ডার্ক টোনের।

কিন্তু, মুভির পরিচালক প্রাশান্ত নীল আসল খেলা দেখিয়েছে মুভির ক্লাইম্যাক্সে৷ সাধারন সাউথ ইন্ডিয়ান মুভিতে শেষে হিরো আর ভিলেনের মধ্যে বড় মাপের লড়াই হয় কিন্তু, কে জি এফ এখানে পুরো উল্টো জিনিস করে। পুরো মুভিতে রকিকে অনেক শক্তিশালী হিসেবে দেখানো হয়েছে এবং তার প্রচুর একশন সিন রয়েছে তাই সকলের এটাই মনে হয় শেষে গাড়ুডা এবং রকির মধ্যে ভয়ংকর লড়াই হবে।

কিন্তু, মুভির শেষে মাত্র এক মূহুর্তে রকি গাড়ুডাকে মেরে ফেলে এবং এই সিনের মাধ্যমে রকির চরিত্রটা আরও গভীরতা পায় কারন এতক্ষন রকি সব ঝামেলা বাহুবলে সমাধন করত কিন্তু, ক্লাইম্যাক্সয়ের পর বোঝা যায় রকি মাথা খাটিয়ে প্ল্যান করেও কাজ করে। মূলত এই সকল কারনেই কে জি এফ মুভিটা আমার কাছে স্পেশাল৷ আশা করি চ্যাপ্টার টুতেও স্পেশাল কিছু পাব৷

মুভিটি বাংলাতে দেখতে K.G.F: Chapter 1 Bangla Subtitle download.

Leave a Comment